সহজ উপায় টনসিলের ব্যথা দূর করার!

আবহাওয়া বদল হচ্ছে, একটু একটু করে শীত বাড়ছে। এর সঙ্গেই বাড়ছে সর্দি-কাশির সমস্যা। অনেক সময় সর্দি-কাশি ছাড়াও গলার ভিতরে খুব ব্যথা হয়, ঢোক গিলতে গেলে খুব কষ্ট হয়। এই ব্যথা সাধারণত টনসিলে ইনফেকশনের কারণে হয়ে থাকে। এই সমস্যা যে কোন বয়সে, যে কোন সময়ে হতে পারে। তবে শীতের ঠাণ্ডায় টনসিলের এই সমস্যা বেড়ে যায়।

গলার দু’পাশে উপরের দিকে গোলাকার পিণ্ডের মতো যেটি দেখা যায়, সেটাই হল টনসিল। এটি শরীরের গুরুত্বপূর্ণ একটি কোষ বা টিস্যু। এই টনসিল গলা, নাক, মুখ কিংবা সাইনাস হয়ে শরীরে প্রবেশ করা জীবাণুকে অন্ত্রে বা পেটে ঢুকতে বাধা দিয়ে থাকে। সর্দি-কাশির জন্য যে ভাইরাসগুলো দায়ী, সেগুলোই টনসিলের সংক্রমণের জন্যেও দায়ী।

সংক্রমণের ফলে যদি টনসিলে ব্যথা হয় তখন ওষুধ কিংবা অ্যান্টিবায়োটিক খেয়ে থাকেন অনেকে। তবে ওষুধ না খেয়েও টনসিলের এই ব্যথা ঘরোয়া কিছু উপায় দিয়ে সারিয়ে তোলা সম্ভব। এবার টনসিলের ব্যথা কমানোর সেই উপায় সম্পর্কে জানা যাক…

লবণ জল
গলা ব্যথা শুরু হলে যে কাজটি প্রথমেই করা উচিত, তাহলো সামান্য উষ্ণ জলে লবণ দিয়ে কুলকুচি (গার্গল) করা। লবণ জলটনসিলের সংক্রমণ রোধ করে ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। শুধু তাই নয়, উষ্ণ লবণ জল দিয়ে কুলকুচি করলে গলায় ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের আশঙ্কাও অনেকটাই কমে যায়।

সবুজ চা আর মধু
এককাপ গরম জলে আধা চামচ সবুজ চা পাতা আর এক চামচ মধু দিয়ে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। এবার ধীরে ধীরে চুমুক দিয়ে ওই চা পান করুন। সবুজ চায়ে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে, যা সব রকম ক্ষতিকর জীবাণু ধ্বংস করে। দিনে ৩ থেকে ৪ কাপ এই মধু-চা পান করুন, উপকার পাবেন।

হলুদ মিশ্রিত দুধ
এককাপ গরম দুধে এক চিমটে হলুদ মিশিয়ে নিন। তবে ছাগলের দুধ হলে ভালো। কারণ, ছাগলের দুধে অ্যান্টিব্যায়টিক উপাদান আছে, যা টনসিলের ব্যথা দূর করতে বেশ কার্যকরী। তবে ছাগলের দুধ না পেলে গরুর দুধে সামান্য হলুদ মিশিয়ে সেটিকে সামান্য গরম করে খেলেও উপকার পাওয়া যায়। হলুদ অ্যান্টি ইনফ্লামেন্টরী, অ্যান্টিব্যায়টিক এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ একটি উপাদান, যা গলা টনসিলের সংক্রমণ ও ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে।

আদা চা
দেড় কাপ জলে এক চামচ আদা কুচি আর আন্দাজ মতো চা দিয়ে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। দিনে অন্তত ২-৩ বার এটি পান করুন। আদার অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি ইনফালামেন্টরি উপাদান সংক্রমণে বাধা দেয়। এর সঙ্গে সঙ্গে গলার ব্যথা কমিয়ে দিতেও এটি অত্যন্ত কার্যকরী।

লেবুর রস
২০০ মিলিগ্রাম উষ্ণ গরম জলে এক চামচ লেবুর রস, এক চামচ মধু, আধা চামচ লবণ ভাল করে মিশিয়ে নিন। যত দিন গলা ব্যথা ভাল না হয়, তত দিন পর্যন্ত এই মিশ্রণটি সেবন করুন। টনসিলের সম্যসা দূর করার জন্য এটি খুবই কার্যকরী।