টুইটারে কিংবদন্তি গায়িকা লতা মঙ্গেশকরকে অপমান, কড়া জবাব দিলেন আদনান সামি

বিভিন্ন কারণে বিভিন্ন সময়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে তারকাদের করা হয় কটাক্ষ, বিদ্রুপ ও ব্যঙ্গ। তাদের তোলা হয় বিভিন্ন বিচারের কাঠগড়ায়। আর এবার ভারতের সংগীত সম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকরকে অপমান করলো এক নেটিজেন। আর তাই নিয়েই তোলপাড় হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। আর সেই নেটিজেনদের মন্তব্যের প্রতিবাদ করেছেন সকলে। এমনকি সেই সমালোচনাকারীকে কড়া জবাব দিয়েছেন গায়ক আদনান সময় ও পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় টুইটটি করা হয়েছিল ককাবেরী নামে এক প্রোফাইল থেকে যেখানে টুইট করে লেখা হয় যে ভারতীয়দের মগজ ধোলাই করে বোঝানো হয়েছে যে লতা মঙ্গেস্কর কণ্ঠ্বে ভালো। আর সেই টুইট শেয়ার করে আদনান শামি লেখেন “বান্দর কেয়া জানে অদ্রক কা স্বাদ। মুখ খুলে সবার সামনে নিজের নির্বুদ্ধিতা প্রমাণ না করে চুপ করে থাকলে ভাল হত না!”

এরপর বলিউড পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী লেখেন আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি লতা মঙ্গেশকরের নিন্দুকরা যেন পরের জন্মে আমাদের মতো মানুষ হয়ে জন্মান যাতে তারা সৌন্দর্যের মূল্য এবং স্বর্গীয় অনুভূতি বুঝতে পারেন।

পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী লেখেন,”আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি লতা মঙ্গেশকরের নিন্দুকরা যেন পরের জন্মে আমাদের মতো মানুষ হয়ে জন্মান যাতে তারা সৌন্দর্যের মূল্য এবং স্বর্গীয় অনুভূতি বুঝতে পারেন।”

ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন আর এক নেটিজেন। গৌরব মিশ্র নামে একজন ‘রং দে বাসন্তী’ সিনেমার গান শেয়ার করে লিখেছেন যে “এটা ঠিক লতা মঙ্গেশকের কণ্ঠ শুধু ভাল নয়। আসলে লতা মঙ্গেশকরজির কণ্ঠই সেরা।”

এরপর প্রিয়াঙ্ক নামের এক নেটিজেন লিখেছেন ‘কাবেরির মন্তব্যের থেকেও বেশি সমস্যার সেই নির্বোধরা যারা এই টুইটে করেছেন লাইক।’ এরকমই অসংখ্য প্রতিবাদে ভরে গিয়েছে টুইটার। নেটিজেনরা ভারতের ৯১ বছরের সুর সম্রাজ্ঞীর হয়ে এভাবেই দিয়েছেন কড়া জবাব।