TIPS: সন্তানদের সবসময় শাসন নয়, খানিকটা সুযোগ দিন তাদেরকেও

এই করোনা আবহে আপনি যে শুধু দুশ্চিন্তায় আছেন তা কিন্তু নয়। সেও এই করোনা কালে মনে মনে রয়েছে ভিশন উদ্বেগে। তার মনেও উঠছে প্রশ্ন কবে স্কুল খুলবে আর কবে এই বাড়িতে বসে থার বন্দি দশা কাটবে। তাই সে বাড়িতে থেকেও যেন আনন্দ পায় আবার অতিরিক্ত দুষ্টমি যাতে না করে সেদিকে খেয়াল রাখুন।

আপনি শুরুতেই একটা কাজ করতে পারেন। সেটি হলো সন্তানদের সাথে আলোচনা করে তাদের আগে একটা রুটিন করে দিন। আর সেই রুটিনেই ঠিক করে দিন সে কতক্ষন আর কোন সময় পড়বে ও বসে বসে টিভি দেখবে। সেইভাবেই রুটিনে রাখুন সে কখন খেতে যাবে , সকালে কখন ঘুম থেকে উঠবে ,হালকা ব্যাম বা তার শোকের কোনো কাজ কখন করবে। আর সেই রুটিনের একটা কপি তাকে দিয়ে দিন আর একটি আপনি সাথে রাখুন।

আর খেয়াল রাখুন সে রুটিন অনুযায়ী কাজ করছে কিনা। রুটিনের অনিয়ম করলে তাকে দিনের শেষে তা মনে করিয়ে দিন। এরফলে অশান্তি কমবে ও আপনার সন্তানের দায়িত্ববোধ জ্ঞান আসবে ছোটবেলা থেকেই। সেই সাথে শিখবে নিয়মানুবর্তিতা।

যদি সে রুটিন মানাতে ঢিলেমি করে তাহলে বোকা ঝকা না করে দিনের শেষে তাকে আবার মনে করিয়ে দিন। এরফলে সে ধীরে ধীরে রুটিনের নিয়মে চলে আসবে।

আর যেদিন আপনার সন্তান নিয়ম মানবে সেদিন ওকে তার পছন্দের একটি খাবার বানিয়ে দিন বা তাকে তার পছন্দের গেম খেলার সুযোগ করে দিন। আর তাকে বুঝিয়ে দিন ইটা তার নিয়ম মানার পুরুস্কার। অর্থাৎ সে যেন বুঝতে পারে যদি সে নিয়ম মানে তাহলে থাকবে পুরুস্কার নইলে জুটবে তিরস্কার।

তবে তার যদি বিশেষ কোনও দাবি থাকে তাহলে আগেই তা উড়িয়ে না দিয়ে তার কথা মন দিয়ে শুনুন আর ভেবে দেখুন তাতে তার কোনোও ক্ষতি হবে কিনা। আর তা মনে হলে তাকে তা বুঝিয়ে দিন।
আর ভুলেও কখনো অন্যের সাথে তুলনা করবেন না কারণ এতে তার তো ভালো হয়ই না উল্টে তার মাথায় পড়ে মানসিক প্রভাব।