কে কেমন প্রকৃতির মানুষ, জেনেনিন কিছু বিষয় লক্ষ্য করেই

এই সমাজে আমরা কেউই একা বসবাস করতে পারিনা। আমাদের সঙ্গে প্রয়োজন হয় অন্য মানুষেরও। কারণ, এমন অনেক কাজ আছে যেটা কখনোই আমরা একা করতে পারিনা দরকার হয় অন্য আরেকজনের। তাইতো কতরকম মানুষ মিলেই তৈরী হয় একটা পরিবেশ। কিন্তু কে কেমন প্রকৃতির মানুষ জানেন কি? যদি না জেনে থাকেন তাহলে জেনেনিন। এমন কিছু বিষয় আছে যেগুলি লক্ষ্য করলেই আপনি বুঝতে পারবেন সে কেমন প্রকৃতির মানুষ।

১-হাতের গঠন
আপনি যদি জানতে চান তার জীবনে সুখের সময় চলছে না দুঃখের সময় চলছে। তাহলে আপনি তার হাতের গঠন দেখেই বুঝতে পারবেন। আর যদি চরিত্রের দিক থেকে হয় তাহলে বুঝবেন, তার যদি হাতের তালু চওড়া হয় তাহলে সে যেকোনো সমস্যাকে সামনে থেকে ফেস করতেই বেশি পছন্দ করেন।এমনকি এরা মনের কথাও কাউকে বলেন না। এমন কোনো মানুষকে যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনি নিজেই তাকে আপনার মনের কথা বলে ফেলুন।

২-কি ধরণের বই পড়তে বেশি পছন্দ করে সেদিকে খেয়াল রাখুন অবশ্যই
আপনি যাকে জানতে হ্যান সে কি ধরণের বই পরে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। অনেকে আছে যারা ক্ল্যাসিকাল বই পড়তে পছন্দ করেন, তারা সাধারণ যেকোনো মানুষকে খুব ভেতর থেকে জানার চেষ্টা করেন।তবে উপরে উপরে এরা অন্যকে জানার আগ্রহ দেখায় না।তাই আপনি যদি এমন কোনো বন্ধুর সঙ্গে মেলামেশা করে থাকেন তাহলে আপনার মনের কথা তাদের কাছে তুলে ধরুন দেখবেন বন্ধুত্বটা আরো বেড়ে যাবে।

৩-কতক্ষন অন্তর অন্তর ফোন চেক করে
যারা মানসিকভাবে খুব অস্থির অবস্থায় থাকেন, তারাই মূলত বারে বারে মোবাইল চেক করে থাকেন। তাই কোনো বন্ধুকে এমনটা করতে দেখলে তার পাশে থাকতে ভুলবেন না!

৪-চোখে চোখ মিলিয়ে কথা বলছে কি?
কোনো নতুন মানুষের সঙ্গে আলাপ করার সময় খেয়াল করে দেখুন, তিনি আপনার চোখে চোখ রেখে কথা বলছেন কিনা! কেই যদি চোখ মিলিয়ে কথা না বলেন, তাহলে জানবেন তিনি কিছু লুকানোর চেষ্টা করছেন অথবা মানসিকভাবে একেবারেই ভালো অবস্থায় নেই। সেই কারণেই এতটাই আত্মবিশ্বাস কমে গেছে যে চোখ চোখ রেখে কথা বলার সাহসটুকুও জোটাতে পারছেন না! এদিকে যারা সবসময় চোখে চোখ মিলিয়ে কথা বলেন, তারা খুব আত্মবিশ্বাসী হন, এমনটাই ধারনা বিশেষজ্ঞদের।