আনারসের নানা ধরণের গুন্ থাকলেও কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে!

আনারসের ভিটামিন, মিনারেল ও এসিড উপাদান দাঁতের গোড়া মজবুত করে, জীবাণু ধ্বংস করে কালো দাগ দূর করে। আনারসে রয়েছে বেটা ক্যারোটিন যা দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়। বিশেষ করে যারা বয়সের কারণে চোখে কম দেখেন তাদের জন্য আনারস খুব উপকারী। আনারসের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান ক্যান্সারের জীবাণুর সঙ্গে লড়াই করে কোষকে ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। আনারসের শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান কোলেস্টেরল কমিয়ে হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। ব্রোমেলিন, ভিটামিন সি ও ডায়েট্রি ফাইবার সমৃদ্ধ আনারস হজমের শক্তি বাড়ায়।
আনারসের কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা-
১. আনারসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ এবং সি, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ফসফরাস। এই সকল উপাদান আমাদের দেহের পুষ্টির অভাব পূরণে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। প্রতিদিন অল্প পরিমাণে আনারস খেলে দেহে এইসকল পুষ্টি উপাদানের অভাব থাকবে না।
২. আনারস আমাদের হজমশক্তি বৃদ্ধি করতে বেশ কার্যকরী। আনারসে রয়েছে ব্রোমেলিন যা আমাদের হজমশক্তিকে উন্নত করতে সাহায্য করে।
৩. আনারসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম ও ম্যাংগানিজ। ক্যালসিয়াম হাড়ের গঠনে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং ম্যাংগানিজ হাড়কে করে তোলে মজবুত।