Tips: লকডাউনে উপার্জন করুন ঘরে বসেই, রইলো কয়েকটি সহজ উপায়

করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। বাদ নেই আমাদের ভারতবর্ষ। ঘরে ঘরে চলছে লক ডাউনের প্রভাব। কারণ লক ডাউনের কারণে ঝিমিয়ে পড়েছে আয়ের সুযোগ। তাই এই লক ডাউনে আপনাদের জন্য নিয়ে আসা হলো ৬টি সহজ ও গুরুত্বপূর্ণ উপায় উপার্জন করার।

অনলাইন পরিষেবার কাজ:বর্তমান লকডাউন পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে বিভিন্ন অনলাইন শপের ওপর মানুষের নির্ভরশীলতা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। মুদি, রান্না সামগ্রী, ওষুধ, শিশুদের বিভিন্ন পণ্যসহ নানা ধরনের পণ্য অনেকে অনলাইনেই অর্ডার করছেন। তাই আপনিও একটি অনলাইন পোর্টাল খুলে অথবা কোনো অনলাইন সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করে করতে পারেন অর্ডার সরবরাহের কাজ।

অনলাইন প্রোগ্রামিং: কোডিং যদি আপনার ভালোবাসা হয়।তাহলে বিভিন্ন অনলাইন কোডিং প্রোগ্রাম যেমন পিএইচপি ,পাইথন, C + ও যাবার মতো কোনো প্রোগ্রামিং ভাষায় দক্ষতা থাকলে আপনি সহজেই পেয়ে যেতে পারেন অনলাইনে কাজ অথবা ফ্রিল্যান্সিংয়ের জন্যে আবেদন করতে পারেন।

অনলাইন মার্কেটিং:
অনলাইনে উপার্জন করার একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হলো এফিলিয়েট মার্কেটিং।বিভিন্ন সংস্থার লোভনীয় কমিশনের কারণে অনেকেই এই কাজ কে জীবিকা হিসেবে গ্রহণ করেছে।যদি আপনার মধ্যে কিছু SEO সম্পর্কে জ্ঞান থাকে তাহলে এই উপায়ে উপার্জন করতে পারবেন অনেক।

অনলাইন গ্রাফিক ডিজাইনের কাজ:
আপনি যদি গ্রাফিক ডিজাইনিংয়ের কাজ জেনে থাকেন অথবা যেকোনো সাধারণ গ্রাফিক ডিজাইনিংয়ের সফটওয়্যার পরিচালনাতে দক্ষ হয়ে থাকেন।তাহলে অনলাইনে অর্থ উপার্জন খুব সহজেই করতে পারবেন।

অনলাইন টিচিং এবং টিউটরিং: বর্তমান সময়ে একটি জনপ্রিয় উপার্জনের মাধ্যম হয়ে উঠছে অনলাইন টিচিং।নিজের দক্ষতা অনুযায়ী আপনিও খুলে ফেলতে পারেন একটি প্রফেশনাল লিংকডইন প্রোফাইল।শুরুতে কম অর্থের বিনিময়ে কাজ করুন এরপর আপনার জনপ্রিয়তা বাড়লে প্রয়োজন অনুযায়ী অর্থ দাবি করুন।

দক্ষতা ভিত্তিক ফ্রিল্যান্সিং: আপনি ডিজাইনার, লেখক বা প্রোগ্রামার না হয়ে থাকলেও চিন্তার কিছু নেই। তা সত্ত্বেও আপনার রয়েছে বিভিন্ন কাজের সুযোগ আপনার যদি ব্যবসার পরিকল্পনা, প্রকল্প পরিচালনা, ডিজিটাল মার্কেটিং ইত্যাদি জ্ঞানের কোনো নির্দিষ্ট বিষয়ে দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি আন্তর্জাতিক বাজারে ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজের জন্য আবেদন করতে পারেন।