প্লাস্টিকের কাপে চা পান করছেন, ডেকে আনছেন মারাত্বক রোগ! জেনেনিন

চা একটি জনপ্রিয় পানীয়।সারা দিনের কাজের ক্লান্তির পাশাপাশি এটি মনকে সতেজ করতে তোলে।তবে এই চা বা কফি পানের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে।যদি কাপটি হয়ে থাকে প্লাস্টিকের।রাস্তার ধরে কোনও দোকানে দাঁড়িয়ে চা বা কফি খাওয়া মানেই হলো বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই প্লাস্টিকের কাপে খাওয়া, এইসব অভ্যাস ত্যাগ করুন।গবেষষকদের মতে প্লাস্টিকের কাপে ভুলেও সচা খাওয়া ঠিক নয়।তারা জানান যে, প্লাস্টিকের তৈরী বোতল ও শিশুদরের দুধের বোতল, প্লাসাররিকের পাত্রে খাবার ডেকে আনছে নানান ধরণের রোগ।

গবেষষকদের মতে, প্লাস্টিকে থাকা বিসফেনল-এ নামের টক্সিক এ ক্ষেত্রে বড় ঘাতক।গরম খাবার বা পানীয় প্লাস্টিকের সংস্পর্শে এলে ওই রাসায়নিক খাবারের সাথে মেশে।যা নিয়মিত শরীরে ঢুকলে নারীদের ইস্ট্রোজেন হরমোনের কাজের স্বাভাবিকতা বিঘ্নিত হয়।এছাড়াও হার্ট, লিভার, ফুসফুস ও ত্বকও মারাত্বক ক্ষতিৰ প্রভাব ফেলে।

বোতল বা পাত্র তৈরী ব্যবহৃত পলিভিনাইল ক্লোরাইডকে নরম করা হয় থ্যালেট ব্যবহার করে।যা আমাদের শরীরে প্রবেশের ফলে শরীরে বিষক্রিয়া ঘটে।শরীরে এই রাসায়নিক নিয়মিত ঢুকতে থাকলে শ্বাসকষ্ট, স্থূলতা, টাইপ ২ ডায়াবিটিস, কম বুদ্ধাঙ্ক, অটিজম, ব্রেস্ট ক্যানসারের মতো মারাত্বক রোগ শরীরে বাসা বাঁধতে পারে।তাই শরীর সুস্থ রাখতে এগুলোতে খাবার খাওয়া এড়িয়ে চলুন।