যে সহজ পদ্ধতিতে রাগ শীঘ্রই কমাবেন

আপনি যদি রাগ ও ক্ষোভ দীর্ঘদিন অবদমিত রাখেন তবে সেটা আপনার মনোদৈহিক সমস্যার সৃষ্টির কারণ হতে পারে। তাই সুস্থ স্বাভাবিক জীবনের জন্যে রাগ-ক্ষোভের সুষ্ঠু ও নিয়ন্ত্রিত বহিঃপ্রকাশ প্রয়োজন।

দ্রুত ক্ষোভ প্রকাশ করা : ক্ষোভ অনুভব করলে দ্রুত তা প্রকাশ করে ফেলুন। তা না করলে ক্ষোভ জমে জমে জটিলতার বা মানসিক উত্তেজনার সৃষ্টি হবে। তখন আপনার ক্ষোভের প্রকাশ অত্যন্ত অপ্রীতিকর রূপ পরিগ্রহ করবে।

সংযত থাকুন : যে-কোনো সময়ই আপনার অনুভূতির প্রকাশে আপনি সংযত থাকুন। সুযোগ বুঝে আপনার রাগ উৎপাদনকারী ব্যক্তিকে আপনি আক্রমণাত্মক কথা বলে চুপসে দিতে পারেন, কিন্তু তা করতে যাবেন না।

চিঠি লিখুন : যদি মনে হয় কথা বলতে গিয়ে আপনি সবকিছু গুছিয়ে বলতে পারবেন না, তা হলে যার আচরণে আপনি ক্ষুব্ধ হয়েছেন তাকে চিঠি লিখুন। পুরো ঘটনার ও ক্ষোভের বিস্তারিত বিবরণ দিন। আপনি হয়তো কোনোদিন সে চিঠি ডাকে পাঠাবেন না, তবুও ওই লেখার মধ্য দিয়েই আপনার ক্ষোভ ভেতর থেকে বেরিয়ে যাবে।

দম গণনা : রাগ প্রশমিত করার জন্যে দম গণনা করাও এক চমৎকার পদ্ধতি। যখন আপনি রেগে যাচ্ছেন, তখন দম গণনা করুন। এই প্রক্রিয়ায় আপনি লম্বা দম নিন। গণনা করুন আর দম ছাড়তে ছাড়তে ভাবুন, বাতাসের সাথে সাথে শরীরের সব রাগ-ক্রোধ-ক্ষোভ ভেতর থেকে বাইরে চলে যাচ্ছে।