Business Tips: ২৫ হাজার দিয়ে শুরু করুন চানাচুরের ব্যবসা, প্রতিমাসে আয় করতে পারবেন ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত

চানাচুর খেতে কে না পছন্দ করেন! সবাই ঘরে কমবেশি চানাচুর রাখেন। অতিথি আপ্যায়ন থেকে শুরু করে বিকেলের আড্ডা এমনকি অবসর সময়ে খাওয়ার জন্য চানাচুরের চাহিদা অনেক।

সাধারণত সবাই দোকান থেকেই চানাচুর কিনে খেয়ে থাকেন। তবে চাইলে কিন্তু খুব সহজেই মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই ঘরেই চানাচুর তেরি করে নিতে পারবেন। আর এই চানাচুরের ব্যবসা আপনি কম পুঁজিতে শুরু করে উপার্জন করতে পারবেন প্রতিমাসে প্রায় ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। নিজের পছন্দ মতো ফ্লেভার ভাবুন আর বিভিন্ন স্বাদের চানাচুর আপনি বাড়িতেই তৈরী করে তার মার্কেটিং করুন। আপনার চানাচুর বাজারে একবার পছন্দ হয়ে গেলেই আপনার নিজস্ব মার্কেট তৈরী করুন। ও ব্যবসার পরিধি বাড়িয়ে উপার্জন করুন খুব সহজেই।

উপকরণ

১. বেসন
২. লবণ

৩. চিড়া
৪. বাদাম
৫. মসুরের
৬. মুগ ডাল
৭. মটরশুঁটি
৮. হলুদ গুঁড়া

৯. মরিচ গুঁড়া
১০. কালো জিরা
১১. গরম মসলার গুঁড়া
১২. বিটলবণ
১৩. তেল পরিমাণমতো

পদ্ধতি

প্রথমে মসুর ও মুগ ডাল ৪-৫ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে জল ঝরিয়ে নিন। তারপর ছড়ানো একটি প্যানে ডুব তেল দিয়ে গরম করুন। আরেকটি পাত্রে বেসনের সঙ্গে লবণ ও বিটলবণ বাদে সব গুঁড়া মসলা মিশিয়ে নিন।

সামান্য জল দিয়ে একটু শক্ত করে ডো তৈরি করে নিন। তারপর এক চিকন জালি বা কেক ডেকোরেশন নজেল দিয়ে গরম তেলের মধ্যে চেপে চেপে ময়দার মিশ্রণ বের করতে হবে।

এরপর ভালো করে ভেজে নিন। পুড়ে যেন না যায়। তেল থেকে চানাচুর উঠিয়ে একটি টিস্যুর উপরে তুলে নিন। এরপর ওই তেলেই বাদাম ও চিড়া ভেজে নিন।

তারপর জল ঝরিয়ে নেয়া ডালে লবণ, হলুদ, মরিচের গুঁড়া মাখিয়ে ভেজে নিন। এবার চানাচুরের সঙ্গে ডাল, বাদাম ও চিড়া ভাজা মিশিয়ে নিন।

এরপর বিটলবণ ছিটিয়ে দিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম চানাচুর ভাজা। শুকনো এয়ারটাইট বক্সে বেশ কয়েকদিন পর্যন্ত রেখে খেতে পারবেন ঘরে তৈরি মজাদার চানাচুর।