আপনার বগলের কালো দাগ দূর হবে এই একটি উপাদানেই, হয়ে উঠুন আরও মোহনীয়

বগলের কালো দাগ বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে। এর মধ্যে অন্যতম হলো টাইট পোশাক পরা। এক্ষেত্রে কাপড়ের সঙ্গে ঘর্ষণের ফলে কালো দাগ হতে পারে। এ ছাড়াও মৃত কোষ জমে, রেজার দিয়ে লোম কাটলে, ডিওডোরেন্ট ব্যবহারসহ ডায়াবেটিসের কারণেও বগলে কালো দাগ পড়তে পারে।

যত্নের অভাবে এই দাগ আরও গাঢ় হতে থাকে। বগলের কালো দাগ নিয়ে অনেকেই বিব্রতবোধ করে থাকেন। তবে জানেন কি, রান্নাঘরের এক উপাদান ব্যবহারেই বগলের গাঢ় কালো দাগ দূর করা সম্ভব। শুধু বগলেরই নয় শরীরের যেকোনো স্থানের কালো দাগ দূর করে কার্যকরী এক উপাদান হলো আলু।

এটি শুধু একটি সবজিই নয়, বহু উপকারী পুষ্টিগুণেআছে এতে। ত্বকের হাইপার-পিগমেন্টেশনের সমস্যা দূর করতে অনবদ্য এক উপাদান হলো আলু। কালো দাগ দূর করে ত্বককে আরও ফর্সা ও মসৃণ করে এ উপাদানটি।

আলু কীভাবে কালো দাগ দূর করে?

আলুর রসে প্রাকৃতিক ব্লিচিং এজেন্ট যা কালো দাগ দূর করে ত্বককে করে আরও ফর্সা ও দাগহীন। প্রাকৃতিকভাবে ত্বকের কালচে স্থানের মেলানিন উৎপাদন কমিয়ে দাগ দূর করে আলুর ব্লিচিং এজেন্ট।

এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে, যা কোলাজেন উত্পাদন নিয়ন্ত্রণ করে এবং ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখে।

বগলের কালো দাগ দূর করতে কীভাবে আলু ব্যবহার করবেন?

আলুতে আছে প্রাকৃতিক ব্লিচ এবং অ্যান্টি-ইরিটেন্ট, যা আন্ডারআর্মসের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। এ ছাড়াও চুলকানি সারায় এবং মৃত কোষ দূর করে।
এজন্য একটি পাতলা স্লাইস করে কাটা আলুর টুকরো বগলে রাখতে পারেন। অথবা আলুর রস ম্যাসাজ করে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেরতে পারেন। ভালো ফলাফলের জন্য, দিনে অন্তত দু’বার ব্যবহার করুন।

এ ছাড়াও ত্বকের বিভিন্ন স্থানের কালো দাগ দূর করতে, একটি কটনবলে আলুর রস নিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত এভাবে ত্বকের যত্ন নিলে কালো দাগ শিগগিরই হালকা হতে শুরু করবে।